• Hobbies and Dreams

কলা: একটি চমৎকার খাদ্য (বাগানে আবশ্যক গাছ)


কলা একটি এমন ফল, যা বহু প্রাচীন কাল থেকেই চাষ করা হয়ে আসছে। নিউ গিনিতে, দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ায় এই ফল 5000 খ্রিস্টপূর্বাব্দ থেকে এবং সম্ভবত 8000 বিসির পূর্বেও চাষ করা হয়েছে, এমন নমুনা মেলে। দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়া থেকে এটি আফ্রিকা যায় এবং তারপর এটি সারা পৃথিবীতে ছড়িয়ে পড়ে। এখন, কলা বিশেষ খাবারের দলের একটি বলে খুব সাধারণভাবেই গণ্য হওয়া ফল। আমাদের দেশ, ভারতে, চাষ করা হয়,বিপুল পরিমাণেই চাষ হয় এবং সেইজন্য লোকে বলে, এই ফল সত্যিই গরীব মানুষের খাদ্য বা খাবার।

বিভিন্ন ধরনের কলা উপলব্ধ রয়েছে। তাদের বেশিরভাগই বীজবিহীন হয়, যদিও তাদের মধ্যে কিছু অত্যন্ত উৎকৃষ্ট ধরনের কলা। কলা মূলত এক সময়ের উদ্ভিদ; যার মানে, একটি কলা গাছ থেকে, আমরা একাধিক বার ফল আশা করতে পারি না। ফল পেকে গেলে, পরে, তার গাছ শুকিয়ে যায়। কিন্তু, আমরা প্রধান গাছটির পাশ থেকে সাধারণভাবে বেরিয়েআসা তার শিশু গাছ বা, চারার মাধ্যমে কলা বাগান বৃদ্ধি করতে পারি, অনায়াসে।

কলাতে অনেক খাদ্য-মূল্য রয়েছে। এটি একটি ফল,যা কিনা খুব স্বল্প সময়ের মধ্যে শক্তি উৎপন্ন করে এবং সরবরাহ করে। যে কোনও ধরনের খেলা চলাকালীন সময়ে, খেলোয়াড়রা দ্রুত এনার্জি পাওয়ার জন্য এই ফলটি গ্রহণ করেন। একটি সাক্ষাত্কারে, ভারতীয় ক্রিকেট দলের সর্বাধিক বিখ্যাত অধিনায়কদের একজন এই গোপন কথাটি সবার জন্য বলেছেন। তিনি পাকা কলার কথা বলেছেন।

ভারতীয় সংস্কৃতিতে মূলতঃ কলা ভগবানকে নিবেদন করা অন্যান্য খাবারের সাথে বিশেষভাবে নিবেদিত একটি উল্লেখযোগ্য ফল। বলা হয়, ভগবান শ্রীকৃষ্ণ এই ফলটিকে খুব পছন্দ করেন। কাঁচা বীজ-যুক্ত কলা থেকে প্রস্তুত মেনু কৃষ্ণের সবচেয়ে প্রিয়। ভারতে অনেক লোক আছেন, যাঁরা নিয়মিত নিরামিষ খাবার খান। নিরামিষ খাবারের জন্য কলা হল একটি অনন্যসাধারণ ও উৎকৃষ্ট ফল / উদ্ভিদ।

কলা'র খাদ্য মূল্য:

(কাঁচা) প্রতি 100 গ্রামের পুষ্টির মূল্য :

শক্তি --- 371 কেজে (89 কেসিএল)

কার্বোহাইড্রেট --- ২২.84 গ্রাম

চিনি --- 1২.২3 গ্রাম

খাদ্যতালিকাগত ফাইবার --- 2.6 গ্রাম

চর্বি (ফ্যাট)--- 0.33 গ্রাম

প্রোটিন --- 1.09 গ্রাম

ভিটামিন:

থিয়ামিন (বি 1) --- (3%) 0.031 মি.গ্রা

রিবোফ্লভিন (বি ২) --- (6%) 0.073 মিলিগ্রাম

নিয়াসিন (বি 3) --- (4%) 0.665 মিলিগ্রাম

প্যান্টোফেনিক অ্যাসিড (বি 5) --- (7%) 0.334 মিলিগ্রাম

ভিটামিন বি 6 --- (31%) 0.4 মিলিগ্রাম

ফোলট (বি 9) --- (5%) ২0 μg

চোলিন --- (২%) 9.8 এমজি

ভিটামিন সি --- (10%) 8.7 মিলিগ্রাম

খনিজ পদার্থ :

আয়রন --- (২%) 0.26 মিলিগ্রাম

ম্যাগনেসিয়াম --- (8%) 27 মিলিগ্রাম

ম্যাগনেস --- (13%) 0.27 মিলিগ্রাম

ফসফরাস --- (3%) ২২ মিলিগ্রাম

পটাসিয়াম --- (8%) 358 মিলিগ্রাম

সোডিয়াম --- (0%) 1 মিলিগ্রাম

দস্তা --- (২%) 0.15 মি.গ্রা

অন্যান্য উপাদানসমূহ :

জল --- 74.91 গ্রাম

আপনার বাগানে কলা কিভাবে চাষ করা যায়: - এটা খুব সহজ। একটি খুব ছোট জায়গাতেও এই গাছের চাষ করা সম্ভব। এছাড়াও এটি পাত্রে, এমনকি, ছাদেও চাষ করা যাবে। প্রথমতঃ, কিছু কলার চারাগাছ / উদ্ভিদ সংগ্রহ করে, মাটি খনন করতে হবে এবং তারপর সেখানে গাছটি স্থাপন। ব্যস্ এটাই। সূর্যের আলো পেলেই আপনার গাছ খুশি; ফল প্রদান করবে।একবছর পরে, আপনি এটি থেকে ফল পেতে পারেন। এর পিছনে আপনার অতিরিক্ত যত্ন দিয়ে, সময় নষ্ট করার দরকার নেই। এটি একটি সহজ লব্ধ ফল।

পরিচর্যা:

কলাগাছের গোড়া ও শরীর পরিষ্কার রাখতে হয়। পুষ্টি যোগানোর জন্য, গোড়া থেকে খানিক দুরে, বৃত্তাকারে মাটি আলগা করে, পচানো খইল খুবই অল্প মাত্রায় দেওয়া যেতে পারে।


© 2027 By Hobbies and Dreams Proudly created by Hobbies and Dreams

  • Twitter Social Icon
  • Pinterest Social Icon
  • Instagram Social Icon
  • Facebook Social Icon
  • YouTube Social  Icon